Ultimate magazine theme for WordPress.

কোম্পানীগঞ্জে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত সাংবাদিককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ।

0
৯৬ Views

নোয়াখালী- প্রতিনিধি সালমা রিয়াঃ-
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই মেয়র আবদুল কাদের মির্জার সমর্থক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত সাংবাদিক কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।


আহত বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৫), উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের বাসিন্দা এবং সে দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের স্থানীয় কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি।
শুক্রবার (১৯ ফেব্রুযারি) রাত ৮টার দিকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে। প্রেসক্লাব কোম্পানীগঞ্জের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
এর আগে, শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাটের তরকারি বাজারের সামনে সংঘর্ষের এই ঘটনা ঘটে। ওই সময় সে সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহের সময় গুলিবিদ্ধ হয় সে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।
স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই কাদের মির্জা বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের কমিটি ভেঙ্গে দিলে আ’লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে বিরোধ স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে মিথ্যাচারের অভিযোগ এনে এর প্রতিবাদে চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট বাজারে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শুক্রবার বিকেলে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দেয়। পরে বাদলের অনুসারীরা চাপরাশীরহাট বাজারে মিছিল করতে গেলে কাদের মির্জার সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কাদের মির্জা উপস্থিত হলে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয় এবং তারা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ৩জন গুলিবিদ্ধ হয়, এছাড়াও দুই পক্ষের অন্তত ৩৫জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৭জনের অবস্থা আশংকাজনক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.