Ultimate magazine theme for WordPress.

কুষ্টিয়ায় ইটভাটায় অভিযান ঠেকানোর কথা বলে বানিজ্যি ১১ ইট ভাটায় ৩৮ লক্ষ ৫০ হাজার জরিমানা।

0
১৪২ Views

নিজস্ব প্রতিবেদক :

কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের ল্যাব এটেনডেন্ট সেলিম মাহমুদের বিরুদ্ধে অবৈধ ইটভাটায় অভিযান ঠেকানোর কথা বলে উৎকোচ গ্রহনের অভিযোগ উঠেছে। এদিকে অভিযান ঠেকাতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভাটা মালিকরা। মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১) সকাল কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইবি থানাধীন কীর্তিনগর গ্রামের থেকে পরিবেশ অধিদপ্তর এন. এস. আর. এস ইটভাটা থেকে অভিযান শুরু হয় এবং বটতৈল ৪ মাইল এলাকার বি.বি.সি ইটভাটায় এসে আজকের মত অভিযান শেষ করে। এন. এস. আর. এস ও বি.বি.সি ইটভাটা সহ মোট ১১ টি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ৪০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
কুষ্টিয়া সদর উপজেলার কীর্তিনগর গ্রামের এন. এস. আর. এস ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর রেজাউল ইসলাম বাচ্চু কে ৫লক্ষ টাকা, স্বাধীন হাওয়া ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর ফজলুর রহমান স্বাধীন কে ২ লক্ষ টাকা, ৫ স্টার ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর বসির উদ্দিনকে ৪লক্ষ টাকা, লক্ষিপুর গ্রামের এইচ. এন. আর ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর আলী হোসেন কে ৩ লক্ষ টাকা, এ. এফ. এন. আর ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর আবু সাঈদ ৪ লক্ষ টাকা, ১১ মাইল মহিসাডাঙ্গা এম. কে. ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর আব্দুল মাজেদ কে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, বিত্তিপাড়া গ্রামের এইচ. এ. পি. এম ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর হজরত আলী ৩ লক্ষ টাকা, বালিয়াপাড়া গ্রামের ডায়মন্ড ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর মোফাজ্জেল হোসেন কে ৩ লক্ষ টাকা, নোয়াপাড়া গ্রামের ফ্রিমা ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর ফিরোজুর রহমান ছলেমান কে ৪লক্ষ টাকা,
বি. আর. বি. এফ ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর দাউদ মন্ডল কে ৫ লক্ষ টাকা ও বটতৈল ৪ মাইল এলাকার বি. বি. সি ব্রিরিকস্ এর প্রোপাইটর মকবুল হোসেন কে ৩লক্ষ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন পরিবেশ অধিদপ্তরের সিনিয়র সহকারী সচিব ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাদিকুর রহমান। এসময় পরিবেশ অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আতাউল রহমান, র্যাব-১২ সিপিসি-১ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর গাফফারুজ্জামান সহ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে এই অভিযানের সময় কয়েকজন ভাটা মালিক সাংবাদিকদের কাছে জানান, এর আগে ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ড উপজেলার তৈলটুপি গ্রামে যে দিন অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে গুঁড়িয়ে দেয় সেই দিন কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের ল্যাব এটেনডেন্ট সেলিম মাহমুদ ইবি থানার বিভিন্ন ভাটায় গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত ঠেকানোর কথা বলে টাকা ও এক ট্রাক ইট নিয়ে যায়। তবুও আজ ভাটায় কি ভাবে অভিযান হয়? এবিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে অভিযোগ জানাতে বললে ভুক্তভোগীরা বলেন, এখন অভিযোগ করলে ভবিষ্যতে ইটভাটা চালানো সমস্যা হবে।
কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের ল্যাব এটেনডেন্ট সেলিম মাহমুদ এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, সব ভুল তথ্য দিয়েছে। এইগুলো সব মিথ্যা।
এবিষয়ে কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আতাউর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সব অভিযোগ সত্য নাও হতে পারে। তবে কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.