Ultimate magazine theme for WordPress.

বড়লেখায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত দিনমজুর আমির আর নেই।

0
২৭ Views

মোঃ মিফতা আহমদ রাফি মৌলভীবাজার কুলাউড়া প্রতিনিধি

সন্ত্রাসী হামলায় দুই হাত দুই পা ভাঙ্গা জিহবা কাঠা, দুই কানে ছিদ্র করা, ঘাড়ে এবং বাম ও ডান পায়ে পাতার ঘিরার উপরে হাটুর নীচে ও বাম হাতের কব্জিতে অস্ত্রের আঘাতে ক্ষত-বিক্ষত করে আমির উদ্দিন (৬৬) সিলেট ওসমানী মেডিকেলে লাইফসর্পোটে থাকা অবস্থায় আজ ১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টায় মারা গেছেন বলে জানায় ওসমানী মেডিকেল কর্তৃপক্ষ ও তার মেয়ে জেবা।

কিন্তু এ ঘটনার মূল হোতা ও থানায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামী আমির হত্যাকারী যুবদল ক্যাডার এবাদ আহমদ বাপ্পি ঘুরছে এখনও প্রকাশ্যে।

ইতিপূর্বে সে ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুকে কে নিয়ে কট্টুক্তি করেছে সে ঘটনায় মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সদস্য ছালেহ আহমদ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর –––৫৭ ধারায় বড়লেখা থানায় ১৮/৮/২০১৮ সালে মামলা রুজু করেন যার নং-১৭। এর পর কিছুদিন পূর্বে প্রধানমন্ত্রীর কন্যাকে ব্যাঙ্গ করে ফেইসবুকে পোষ্ট দেয় রুমেল নামের এক ব্যক্তি বাপ্পি ভিডিও শেয়ার করে এ ঘটনায় নিজ বাহাদুর পুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম উজ্জ্বল রুমেল ও বাপ্পিকে অভিযুক্ত বড়লেখা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

জানা যায়, বড়লেখার উপজেলার নিজ বাহাদুর ইউ/পির বাউরিলখাল এলাকায় গত ৯ সেপ্টেম্বর একই এলাকার সন্ত্রাসী এবাদ আহমদ বাপ্পী ও তার বাহিনীর হাতে হামলার স্বীকার হন নিহত আমির উদ্দিন। ঘটনার ২দিন পর ১১ সেপ্টেম্বর পুলিশ কালক্ষেপন করে আদার্স সেকশনের মামলা নিলেও ঘটনার সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের নেই কোনো পদক্ষেপ বলে অভিযোগ বাদী ও তার পরিবারের।

এদিকে বাপ্পী বাহিনীর হাতে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা বড়লেখার আমির উদ্দিন ওসমানী মেডিকেলে মারা যাওয়ার খবরে আতঙ্ক উৎকন্ঠা আর শোকের মাতম চলছে এখন নিজ বাহাদুরপুর ইউনিয়নে।
হত্যাকারীদের গ্রেফতার এখন স্থানীয় এলাকার সচেতন মহলের প্রাণের দাবী পুলিশ প্রশাসনের প্রতি।

৯সেপ্টেম্বর বাপ্পি বাহিনীর হাতে হামলার স্বীকার হয়ে একই এলাকার নিরীহ দিনমজুর আমির উদ্দিন ওসমানী মেডিকেলে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকলেও ১৪ সেপ্টেম্বর তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে লাইফ সার্পোটে নিয়ে যাওয়া হয়। ১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।

নিজ বাহাদুরপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন-সম্পাদক বদরুল আলম উজ্জল জানান, আমির উদ্দিনের উপর হামলাকারী এবাদ আহমদ বাপ্পীর বিরুদ্ধে আমি নিজেও বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রী পরিবারকে নিয়ে কটুক্তি করে ফেসবুক পোস্ট দেওয়ায় অর্থাৎ শেয়ার করায় থানায় অভিযোগ দিয়েছি। পুলিশ এখনও তা আমলে নেয় নি।

সয়ং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বরত মন্ত্রী মৌলভীবাজার ১ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ মো: শাহাব উদ্দিন এর ভাগনা মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সদস্য ছালেহ আহমদ জুয়েল নিজে জনান, যুবদল ক্যাডার এবাদ আহমদ বাপ্পী ফেসবুকে প্রধান মন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করেছে তার পরিবার নিয়ে করেছে বাংলাদেশ পুলিশের সকল বিভাগের থানা গুলো এক সাথে বোম মেরে উড়িয়ে দিলে দেশে শান্তি আসবে তাও লিখেছে। আমি ৩ বছর আগে তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করেছি কিন্তু সে মামলা কোন হিমাগারে আছে আমি তা জানি না।

পুলিশকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সিআইডেতে আছে বলে জানায় কিন্তু আসামীর বিরুদ্ধে কোনো একশনে যায় না।

বড়লেখা থানা পুলিশের ওসি জাহাঙ্গীর আলম সরর্দার আমির উদ্দিন এর উপর হামলাকারী বাপ্পির বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে নিয়মিত মামলা রয়েছে বলে নিশ্চিত করেন তবে সেটি তিনি যোগদানের পূর্বে বলেও জানান এবং আমির উদ্দিনের উপর হামলার ঘটনার নিয়মিত মামলার রুজু করা হয়েছে।

এব্যপারে কুলাউড়া সার্কেল এর এ্যাডিশনাল এসপি সাদেক কাওসার দস্তগীর জানান, আমির উদ্দিন এর উপর হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.