Ultimate magazine theme for WordPress.

শাজাহানপুরে খোট্টাপাড়া  ইউনিয়নে গ্রাম বাংলার আবহমান  নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা!

0
৫০ Views

বগুড়া ব্যুরো প্রধানঃ

১১ অক্টোবর (রবিবার) বেলা ১২টা থেকে শাজাহানপুর উপজেলার করতোয়া নদীতে  খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের ভান্ডারপাইকা আবহমান গ্রাম  বাংলার ঐতিহ্যবাহী ও মনোজ্ঞ নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
ভান্ডারপাইকা নৌকা বাইচ পরিচালনা কমিটির আয়োজনে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক সোহরাব হোসেন ছান্নু। খোট্টপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল ফারুক সভাপতিত্বে নৌকা বাইচ উদ্বোধন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু দিলীপ কুমার চৌধুরী।

ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচের আনন্দ উপভোগ করতে বগুড়া সদর, গাবতলী, ধুনট ও শাজাহানপুর উপজেলার লক্ষাধিক সংস্কৃতি প্রেমী মানুষ নদীর পাড়ের দু’ধারে ভীড় জমায়।

প্রতিযোগীতায় গাবতলী উপজেলার কালাই হাটের যুবরাজ, বাগবাড়ী দহপাড়ার লালন শাহ, পারানী পাড়ার রাখে আল্লাহ মারে কে, সোনা-কানিয়ার একতা, হোড়ারদিঘী পশ্চিমপাড়ার ময়ুর পঙ্খী, হোড়ারদিঘী পূর্বপাড়ার পঙ্খীরাজ, তোল্লাতোলার তুফান তরী, হাতিবান্ধার বিজয় বাংলা, বাগবাড়ির বাগবাড়ী কিংরাজ, পারানীপাড়ার আল্লাহ ভরসা, নশিপুরের জলপরী, ধুনট উপজেলার নাংলুর সোনার তরী, পিরাপাটের হিরার তরী এবং শাজাহানপুর উপজেলার নগরের নগর কিং ও নারিল্যার সোনার বাংলা নামে মোট ১৬টি নৌকা অংশ গ্রহন করে।

এই নৌকা বাইচ কে ঘিরে উপজেলার খোট্টাপাড়ার ভান্ডারপাইকা গ্রাম ও এর আশপাশের প্রায় বাড়িতে ভীড় করেছে নাইওরিরা।
রবিবার সকাল থেকেই করতোয়া নদী পাড়ের দু’ধারে নারী-পুরুষ ও শিশু-কিশোররা জড়ো হতে থাকে।
সংবাদ ছড়িয়ে পড়ায় দুপুরের মধ্যে শাজাহানপুর ছাড়াও বগুড়া সদর উপজেলা, ধুনট উপজেলা ও গাবতলী উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক উৎসুক মানুষের মিলন মেলায় নদীর দু’পাড় ছেয়ে যায়। নদীর দু’পাড়েই বসেছিল মেলা। শিশুদের জন্য নাগর দোলাসহ নানা রকমের বিনোদনের ব্যবস্থাও ছিল উপভোগ করার মতো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.