Ultimate magazine theme for WordPress.

দামুড়হুদায়  নাটুদহ  ও নতিপোতা ইউনিয়নে আ.লীগ প্রার্থী শ‌ফিকুল ইসলাম ও আ.লীগ বি‌দ্রোহী প্রাথী ইয়া‌মিন আলী   চেয়ারম‌্যান নির্বা‌চিত।

0
১২০ Views

হাফিজুর রহমান স্টাফ রিপোর্টার :
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপ‌জেলার নাটুদহ ইউ‌নিয়‌নে আ.লীগ প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম‌্যান শ‌ফিকুল ইসলাম শ‌ফি নৌকা প্রতীক নি‌য়ে এবং ন‌তি‌পোতা ইউ‌নিয়‌নে আ.লীগ বি‌দ্রোহী প্রাথী ইয়া‌মিন আলী  আনারস প্রতীক নি‌য়ে বেসরকারী ভা‌বে নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন।
দামুড়হুদা উপ‌জেলা নির্বাহী অফিসা‌রের সভাকক্ষে থে‌কে নির্বাচ‌নের ফলাফল ঘোষনা ক‌রেন  উপ‌জেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান।

ক‌ঠোর নিরাপত্তার ম‌ধ্যেদিয়ে  শ‌নিবার ১০ অক্টোবর
সকাল ৯ টায় শুরু হওয়া ভোট গ্রহণ চলে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত।
নাটুদহ ইউনিয়নে মােট ভােটার ১৪ হাজার ৮২৬ জন । এরমধ্যে পুরুষ ভােটার ৭ হাজার ৩’শ ৭৫ জন ও মহিলা ভােটার ৭ হাজার ৪’শ ৫১ জন । এ ইউনিয়নে ৯ টি ভােট কেন্দ্রে ভােট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে । এখানে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ৬ জন প্রার্থী । আওয়ামীলীগ মনােনিত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি নৌকা , বিএনপি মনােনিত প্রার্থী আমির হােসেন মাস্টার ধানের শীষ , স্বতন্ত্র আওয়ামী লীগ নেতা ইয়াচনবী অটোরিক্সা , আওয়ামী লীগ নেতা ইয়াচনবী অটোরিক্সা , আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হালিম আনারস , বিএনপি নেতা ফজলুল হক মােটরসাইকেল ও আমিনুল ইসলাম মােক্তা টেবিল ফ্যান প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন । এ ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদের ১২ জন ও সাধারণ সদস্য পদের ২৯ জন প্রার্থী রয়েছেন ।
নতিপােতা ইউনিয়নে মােট ভােটার ১৫ হাজার ১২৭ জন । এরমধ্যে পুরুষ ভােটার ৭ হাজার ৫’শ ৭ জন ও মহিলা ভােটার ৭ হাজার ৬’শ ২০ জন । এ ইউনিয়নে ১০ টি কেন্দ্রে ভােট গ্রহণ চল‌ছে । এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ৫ জন প্রার্থী ।
তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনােনিত প্রার্থী আজিজুল হক (নৌকা প্রতীক), বিএনপি মনােনিত প্রার্থী মনিরুজ্জামান মনির (ধানের শীষ প্রতীক) , ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনােনিত প্রার্থী মােশারফ হােসেন (হাতপাখা প্রতীক), স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা রবিউল হাসান (মােটরসাইকেল প্রতীক) ও ইয়ামিন আলী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন (আনারস প্রতীক) নিয়ে। এছাড়া নতিপােতা ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদের ১১ জন ও সাধারণ সদস্য পদের ২৭ জন প্রার্থী রয়েছেন ।উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করােনা ভাইরাস মহামারীর কারণে ভােটের সপ্তাহ খানেক আগে নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন । পরে গেল ১৩ সেপ্টেম্বর ওই দুটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তারিখ ঘােষনা করে গণ বিজ্ঞপ্তি জারি করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ।
করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে স্থগিত হওয়া এ  নির্বাচন সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য করতে মাঠে কঠোর অবস্থানে ছিল প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.