Ultimate magazine theme for WordPress.

পটুয়াখালীতে হত্যা মামলার আসামির হাজিরায় অন্যদের বিচার সেবা ব্যাহত.

0
৭৭ Views

 

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার একটি আলোচিত হত্যা মামলার আসামির আদালতে হাজিরায় অন্য বিচার প্রার্থীদের সেবা ব্যাহত হয়েছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, সম্প্রতি বাউফলের কালাইয়া ইউনিয়নের তাপস নামের এক যুবলীগ কর্মী নিজ দলীয় দু-গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত হয়।পরে তাপস নিহতের ঘটনায় ৩৬ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।আজ সোমবার ৫- অক্টোবর-২০২০ ইং তারিখ এ মামলার ১ নং আসামি মোঃ জিয়াউল হক (জুয়েল) হাজিরা দিতে এসে নিয়মনীতি ও স্বাস্থ্যবিধী উপেক্ষা করে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে মিছিল সহকারে আদালত চত্বরে প্রবেশ করে।ফলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আদালত চত্বরের এরিয়া নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে রাখে।যার কারনে এজেলা শহর সহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত শত শত বিচার প্রার্থীদের সেবা ব্যাহত হয়েছে।এমনকি অনেক বিচার প্রার্থী আদালতে প্রবেশ করতে না পেরে বাড়ি ফিরে গেছে বলে জানা যায়।

এব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন আইনজীবী জানিয়েছেন, আইন সবার জন্য সমান।কিন্তুু আজ যে দৃশ্যের অবতারনা হয়েছে সেটা নজিরবিহীন।দেশে কোভিট-১৯- পরিস্থিতিতে মিছিল মিটিং, মটর শোভাযাত্রা ও সভা সমাবেশ সম্পুর্ন নিষিদ্ধ। সেখানে একটা হত্যা মামলার আসামি জামিন পেতে মিছিল ও মটোর শোভাযাত্রা সহকারে আদালতে প্রবেশ করায় বিজ্ঞ-আদালত অবমাননার শামিল।

এবিষয়ে জানতে চাইলে, উক্ত হত্যা মামলার  ১ নং আসামি মোঃ জিয়াউল হক (জুয়েল), গনমাধ্যমকর্মীদের সাথে কথা বলতে রাজি হয়নি।

প্রসঙ্গত এ মামলার ১ নং আসামি সকাল ১০ টার সময় আদালতে প্রবেশ করেন। তাতে দু-গ্রুপের মধ্যে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করে।ফলে এ খবরটি টক-অবদ্যা টাউনে পরিনত হয়।পরে তিনি বিকেল সাড়ে চারটায় জামিনে বের হয়ে যান।প্রকাশ থাকে যে উক্ত মামলার ১ নং আসামি বাউফল উপজেলার পৌরসভার মেয়র।

Leave A Reply

Your email address will not be published.