Ultimate magazine theme for WordPress.

কক্সবাজার-টেকনাফে পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ নগদ টাকা উদ্ধার।

0
১৪০ Views

জুবাইরুল ইসলাম জুয়েল কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি:-

কক্সবাজারের তুলাবাগান স্টেশন ও টেকনাফের হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ায় পৃথক দুটি অভিযান পরিচালনা করে ৮ হাজার পিস ইয়াবা( ৪২ টি) যৌন উত্তেজক সিরাপ ৪,লাখ ৭৯ হাজার টাকা সহ আমির হোসেন এবং হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার শহীদ উল্লাহকে ৪৫ টি বিদেশি মদ ও ৩৪ টি বিয়ারসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৫

(১৬য়ে সেপ্টেম্বর) রাত ৮:৩০ মি: ও ১০:টার সময়
পৃথক স্থান থেকে তাদেরকে এসব মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতার করা হয়।

আটককৃত আসামিরা হলেন(১) কক্সবাজারের রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের তুলা বাগান স্টেশনের কালা পাড়া ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা বাদশাহ মিয়ার পুত্র: মোঃ আমির হোসেন (৩৩)
(২) টেকনাফের হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার ৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত সৈয়দ হোসেনের পুত্র: মোঃ শহীদুল্লাহ (২১)

এদিকে র‍্যাফিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‍্যাব-১৫ কক্সবাজার সিনিয়র সহকারী পরিচালক( মিডিয়া এন্ড অপারেশন) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব’র-১৫ চৌকস আভিযানিক ২ টি দল পৃথকভাবে অভিযানে রায়।

(১) হ্নীলার পশ্চিম সিকদারপাড়া নামক স্থানে ভাই ভাই স্টোর নামক একটি দোকানে মদ ও বিয়ার বিক্রি উদ্দেশ্যে মজুদ রাখা হয়েছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে রাত সাড়ে দশটার দিকে র‌্যাব’র একটি দল অভিযান পরিচালনা করে। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার সময় শহিদুল্লাকে আটক করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যমতে দোকানে তল্লাশি চালিয়ে ৪৫বোতল বিদেশী মদ এবং ৩৪ ক্যান বিদেশি বিয়ার উদ্ধার করা হয়।

তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত শহীদুল্লাহ উপস্থিত সাক্ষী গণের সম্মুখে শিকার করেন যে, জব্দকৃত মাদক বিক্রির উদ্দেশ্যে নিজ হেফাজতে রেখেছিল এসব মাদকদ্রব্য। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয় যে, তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় তাকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে র‌্যাব’র অপর একটি অভিযান পরিচালনা করে রামু উপজেলার খুনিয়াপালং তুলাবাগান এলাকা থেকে ৮ হাজার পিস ইয়াবা, যৌন উত্তেজক সিরাপ এবং মাদক বিক্রির নগদ ৪ লাখ ৭৯ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় আটক করা হয়েছে মাদক ব্যবসায়ী আমির হোসেন (৩৩)কে।

জানা যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে যে, রামু খুনিয়াপালং ইউনিয়নের তুলাবাগানের স্টেশনে মোহাম্মদ আমির হোসেনের মুদির দোকানে বিক্রির উদ্দেশ্যে ইয়াবা মজুদ রাখা হয়েছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে রাত আটটার দিকে র‌্যাব’র একটি দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। র‌্যাব’র উপস্থিতি টের পেয়ে মুদির দোকানদার আমির হোসেন পালানোর চেষ্টা করলে তাকে আটক করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য মতে দোকানের মালামালের বক্সে রাখা একটি শপিং ব্যাগ থেকে ৮ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। একই সাথে দোকানে বিক্রয়ের ৩০টি যৌন উত্তেজক সিরাপ ফাইটন ইউনানী ঔষুধ, ১২টি যৌন উত্তেজক সিরাজ ‘লাভ ফর এভার’ এনার্জি ড্রিংকস এবং মাদক বিক্রির ৪ লাখ ৭৯ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

আটকৃত আসামি মোঃ আমির হোসেন’কে স্থানীয় উপস্থিত সাক্ষী গণের সামনে, ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন যে, দীর্ঘদিন যাবৎ সীমান্তবর্তী এলাকায় এসব মাদকদ্রব্য ইয়াবা সংগ্রহ করে কক্সবাজার’সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ক্রয়-বিক্রয় করে আসছে। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কক্সবাজার জেলার রামু থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

জুবাইরুল ইসলাম জুয়েল
কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.