Ultimate magazine theme for WordPress.

ডাকাতি করার প্রস্তুতি কালে কোতয়ালী মডেল থানা ও চাচড়া ফাঁড়ী পুলিশের যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমান দেশী-বিদেশী অস্ত্র উদ্ধার সহ ০৩(তিন) ডাকাত আটক।

0
১০৮ Views

 

নিজস্ব প্রতিবেদক 

ঘটনাস্থলঃ- যশোর বেনাপোল মহাসড়কের মালঞ্চী গ্রামস্থ এম.বি.বি.আই ইট ভাটার সামনে

ঘটনাঃ এসআই(নিঃ)/মোঃ মাসুদুর রহমান, চাচড়া পুলিশ ফাঁড়ী ও সংগীয় কোতয়ালী থানার অফিসার ও ফোর্সসহ ৩০/০৯/২০২০খ্রিঃ তারিখ রাত্র ২১:৫৫ ঘটিকার সময় চাঁচড়া চেকপোষ্ট এলাকায় অবস্থানকালে গোপন সূত্রে সংবাদ পান যে, যশোর কোতয়ালী মডেল থানাধীন যশোর বেনাপোল মহাসড়কের মালঞ্চী গ্রামস্থ এম.বি.বি.আই ইট ভাটার সামনে মহাসড়কের উপর কয়েকজন ডাকাত রাস্তায় ডাকাতি করার জন্য সমবেত হয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করছে।

উক্ত সংবাদ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে চাচড়া পুলিশ ফাঁড়ীর এসআই(নিঃ) মোঃ মাসুদুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স এবং যশোর কোতয়ালী মডেল থানার মোবাইল-১৫, মোবাইল-১২ এর ডিউটিরত অফিসার ও ফোর্সসহ ৩০/০৯/২০২০ খ্রিঃ তারিখ রাত্র ২২:২০ ঘটিকার সময় উক্ত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে আসামীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে ১নং আসামী মোঃ সাব্বির হোসেন (২৫) পাকা রাস্তার উপর পড়ে যায় এবং তাকে আটক করা হয়।

একই সাথে ২নং আসামী মোঃ সোহেল রানা (২৮) ও রাকিব ইসলাম (২৮) কে আটক করা হয়।

বাকি ৬/৭ জন ডাকাত সদস্য পালিয়ে যায় তাদের কে আটক করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে ধৃত আসামী মোঃ সাব্বির হোসেন (২৫) এর দেহ তল্লাশীকালে তার পরিহিত প্যান্টের কোমরের পিছনে দিকে ঢুকানো অবস্থায় ০১টি সচল শাটারগান, মোঃ সোহেল রানা (২৮) এর দেহ তল্লাশীকালে তার কোমরে গোজা অবস্থায় ০১টি সচল ওয়ান শুটারগান এবং তার পরিহিত প্যান্টের ডান পকেট হতে সবুজ বর্নের ০৫ রাউন্ড কার্তুজ এবং ধৃত আসামী রাকিব ইসলাম (২৮) এর দেহ তল্লাশীকালে তার ডান হাতে ধরা অবস্থায় ০১টি সচল পাইপগান এবং তার পরিহিত প্যান্টের বাম পকেট হতে ০২ রাউন্ড নীল রংয়ের কার্তুজ এবং অজ্ঞাতনামা আসামীদের ফেলে যাওয়া ঘটনাস্থল হতে ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় ০১টি ছোরা, ০২টি দা, ০১টি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় যে, ধৃত ও অজ্ঞাতনামা আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন ধরে রাস্তায় ডাকাতি করে আসছিলো।

তারা উক্ত স্থানে সমবেত হইয়া ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করছিল। ধৃত ও অজ্ঞাতনামা আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে অবৈধ সচল আগ্নেয়াস্ত্র, তাজা গুলি, তাজা কার্তুজ ও দেশীয় ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঘটনাস্থলে সমবেত হয়ে ডাকাতি করার প্রস্তুত গ্রহণ করাই তাদের বিরুদ্ধে পৃথক ০২টি মামলা রুজু করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত মালামালের বর্ননাঃ
(ক) ০১টি সচল ওয়ান শুটারগান, যাহা বাটসহ লম্বা ১০ ইঞ্চি,
(খ) ০১টি সচল শাটারগান, বাটসহ লম্বা ২১.৫ ইঞ্চি,
(গ) ০১টি সচল পাইপগান, যাহার লম্বা ২০ ইঞ্চি,
(ঘ) ০১ রাউন্ড শুটারগান এর গুলি,
(ঙ) ০৭ রাউন্ড কার্তুজ, যাহার মধ্যে ০৫ রাউন্ড সবুজ ও ০২ রাউন্ড নীল বর্নের,
(চ) ০১টি ছোরা, লোহার বাটসহ লম্বা ২৬ ইঞ্চি,
(ছ) ০১টি দা, কাঠের বাটযুক্ত, বাটসহ লম্বা ২৫ ইঞ্চি,
(জ) ০১টি দা, লোহার বাটসহ লম্বা ২০ ইঞ্চি,
(ঝ) ০১টি চাপাতি, যাহার হাতল কালো রংয়ের কসটেপ দ্বারা মোড়ানো লম্বা ২৮.৫ ইঞ্চি

ধৃত আসামী ১। মোঃ সাব্বির হোসেন (২৫), পিতা-মোঃ তৈয়ব আলী, সাং-চাঁচড়া রায়পাড়া শামসু মিস্ত্রীর বাড়ীর পাশে, ২। মোঃ সোহেল রানা (২৮), পিতা-আব্দুল সাত্তার গাজী, সাং-লেবুতলা দক্ষিনপাড়া, ৩। রাকিব ইসলাম (২৮), পিতা-মোঃ নজরুল ইসলাম, সাং-বারান্দী মোল্যাপাড়া ইউনুচ এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া (ভাসমান), সর্ব থানা-কোতয়ালী, জেলা-যশোর।

Leave A Reply

Your email address will not be published.