Ultimate magazine theme for WordPress.

দেওনাই নদী হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা।

0
১৫০ Views

নূর মোহাম্মদ সুমন, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধিঃ-

নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বোড়াগাড়ী পারঘাট এলাকার দেওনাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে পরিবহনের সময় ট্রলিসহ ১১টি ট্রাক্টর জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১২জনের বিরুদ্ধে ডোমার থানায় মামলা দায়ের করেছে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা উত্তম কুমার সিং।

বৃহস্পতিবার(৬ মে/২০২১) ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গতকাল বুধবার (৫ মে/২০২১) রাত সোয়া আটটায় বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপন আইন ২০১০ এর ১৫ ধারায় মামলাটি রুজু করা হয়েছে (মামলা নম্বর ২)। মামলার আলামত হিসাবে ১১টি ট্রলিসহ ট্রাক্টর ও ১৫টি বালু তোলার বেলচা জব্দ করা হয়। মামলায় আসামী করা হয়েছে ডোমারের স্থায়ী বাসিন্দা আয়নাল হক,মশিয়ার রহমান, মোঃ মানিক,সেলিম মিয়া,ওমর ফারুক,আজিবর রহমান,রাজা মিয়া, জাহিদ মিয়া,সাবু মিয়া, লক্ষ্মন, মোঃ সোহেল ও উজ্জল।

এলাকাবাসী জানায়, ডোমারের দেওনাই নদীটি খনন করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। নদী খননের বালু নিলামে বিক্রি করা হয় সরকারি ভাবে। নিলামে বালু অপসারন ও বিক্রির জন্য অনুমোদন পায় ডোমারের আয়নাল হক ও মশিয়ার রহমান। তারা নিয়ম অনুযায়ী চলতি বছরের ১২ এপ্রিলের মধ্যে নিলামের বালু অপসারন করে তা বিক্রি করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ এর পরেও তারা সহ আরও অনেকে প্রভাব বিস্তার করে নদী থেকে নতুন করে বালু কেটে বিক্রি করছিল। তাদের এলাকাবাসী বাধা দিলে তারা ডোমার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদের নাম ব্যবহারের মাধ্যমে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রি করছিল।

এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পায় উপজেলা প্রশাসন। ওই অভিযোগে বুধবার দুপুরে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা উত্তম কুমার সিং ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ১১টি ট্রলি সহ ট্রাক্টর ও ১৫টি বালু তোলার বেলচা জব্দ করার পর রাতে ডোমার থানায় মামলা দায়ের করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.