Ultimate magazine theme for WordPress.

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘড়িয়া) আসনের উপনির্বাচনের নৌকা মার্কার দুটি নির্বাচনী অফিসে ভাংচুর ও গুলি বর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা।

0
১২৭ Views

মো: ইয়াছিন শেখ ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : গত রাত (বুধবার) সারে ১১টার দিকে ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের আজিজলতলা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা মার্কার প্রাথী আলহাজ্ব নুরুজ্জামান নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ,গুলি বর্ষণ, ও অগ্নি সংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা।

 

অপর দিকে রাত ১২টার দিকে ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের মানিকনগর স্কুল পাড়া অফিসেও দুর্বৃত্তরা চালায়। সে সময় অফিস দুটিতে কোন নেতা কর্মী ছিল না ফলে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে অফিসে থাকা চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে। এ সময় ৭ রাউন্ড গুলির শব্দ শোনা গেছে বলে এলাকাবাসি জানান। এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

 

এ বিষয়ে নৌকা মার্কার প্রাথী আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় ভেবে ধানের শীষের প্রার্থী হাববুর রহমান হাবিবের সন্ত্রাসীরা এ কাজ করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

ধানের শীষের প্রার্থী হাববুর রহমান হাবিব সোস্যাল মিডিয়াতে এক ভিডিও বার্তায় বলেন-আজিজলতলা এলাকার জনপদের লোকজন আমার ও ধানের শীষের পক্ষের ,সেখানে গত নিবাচনেও ধানের শীষ বিপুল ভোট পেয়েছিল। এ বিষয়ে আমি ওসি সাহেবকে রাতেই ফোন করেছি প্রকৃত অপরাধিকে বের করেন । এত রাতে আমার এলাকার লোক কেন গুলির শব্দ শুনছে।

ঘটনার সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা বিক্ষোভ প্রতিবাদ মিছিল প্রদর্শন করেছে।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইন্চার্জ শেখ নাসির উদ্দীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন , আমিও শুনেছি নৌকা মার্কার দুটি অফিসে কে বা কারা ভাংচুর, ফাঁকাগুলি বর্ষন করেছে- আমরা সেখানে পরিদর্শন করেছি , প্রকৃত অপরাধি বের করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.