Ultimate magazine theme for WordPress.

0
২২৩ Views

বি এম আলাউদ্দীন, আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনিতে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে উপজেলা অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হলরুমে আগামী ০৪ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপন উপলক্ষে এ অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মীর আলিফ রেজা। সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক (দায়িত্বপ্রাপ্ত) এসএম মোক্তারুজ্জামান স্বপনের সঞ্চালনায় এসময় আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ দীপন বিশ্বাস, স্যানিটারী ইন্সপেক্টর জিএম গোলাম মোস্তফা, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার এনামুল হক, এমটি ইপিআই দিলীপ কুমার ঘোষ, স্বাস্থ্য পরিদর্শক ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক রমেশ চন্দ্র মন্ডল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আশাশুনিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে
প্রতারণা\থানায় লিখিত অভিযোগ

বি এম আলাউদ্দীন, আশাশুনি প্রতিনিধি:
আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের হাফিজুলসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার অভিযোগ এনে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। পাইকগাছার দেবদুয়ার গ্রামের মহসিন মিস্ত্রীর কন্যা শিরিনা খাতুন কতৃক থানায় দায়েরকৃত লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানাগেছে, উপজেলার রামনগর গ্রামের আলীম উদ্দীন গাজীর ছেলে হাফিজুল ইসলামের সাথে একই গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে লাচ্চুর মাধ্যমে পরিচিত শিরিনা হন। এরপর থেকে মোবাইলে তাদের মধ্যে যোগাযোগের এক পর্যায়ে বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে কাছে পেতে প্রতারণার আশ্রয় নেয় হাফিজুল। গত ১৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় হাফিজুল তাকে দরগাহপুর বাসস্ট্যন্ডে ডেকে নিয়ে সেখান থেকে যশোরে রওয়ানা হয় এবং খাজুরায় তার পরিচিত জনৈক হক এর বাড়িতে নিয়ে ওঠে। সেখানে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। তিন দিন সেখানে থাকার পর হাফিজুলের ভাই নূর ইসলাম ও লাচ্চু মোবাইলে কথা বলে বাড়ি ফিরতে বলে। তিনদিন পর তারা বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হয়ে দরগাহপুরে আসলে ভাই ও লাচ্চুর কুপরামর্শে তাকে নিজের বাড়িতে না নিয়ে লাচ্চুর বাড়িতে নিয়ে তোলে। এরপর তারা ষড়যন্ত্র করে খুব শীঘ্রই বিয়ের ব্যবস্থা করা হবে বলে ওয়াদা করে শিরিনাকে তার পিতার বাড়িতে পাঠায়। কিন্তু পরে আর তার ফোন না ধরাসহ যোগাযোগ না রাখায় অনেক চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় শিরিনা। বাধ্য হয়ে শিরিনা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এব্যাপারে বিবাদী হাফিজুলসহ তার সহায়তাকারীদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

বি এম আলাউদ্দীন, আশাশুনি।
মোবাইল নং-০১৭১২-৯১৫৭৩০

Leave A Reply

Your email address will not be published.