Ultimate magazine theme for WordPress.

রাজশাহীর বহরমপুর মোড়ে সড়কজুড়ে নান্দনিক আলোকায়নের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

0
৬০ Views

রাজশাহী প্রতিনিধি

রাজশাহীর সিটি বাইপাসে এবার ঝরবে আলোর মুক্তা ফোর লেন সড়কে। মহানগরীর বিলসিমলা রেলক্রসিং থেকে কাশিয়াডাঙ্গা মোড় পর্যন্ত ফোরলেন সড়কে দৃষ্টিনন্দন আধুনিক সড়কবাতির উদ্বোধন করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) রাতে বহরমপুর মোড়ে সড়কজুড়ে নান্দনিক আলোকায়নের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

দেশের প্রথম সিটি হিসেবে রাজশাহীতে মহাসড়কে উন্নত বিশ্বের নামীদামী শহরগুলোর ন্যায় এ ধরনের দৃষ্টি নন্দন সড়কবাতি সংযোজিত হলো। মহাসড়কে সড়কবাতি মাধ্যমে আলো ঝলমলে হবে ৪ দশমিক ২ কিলোমিটার সড়ক ও এর আশপাশের এলাকা। সড়কবাতির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাসিক মেয়র বলেন, বিলসিমলা রেলক্রসিং থেকে কাশিয়াডাঙ্গা মোড় পর্যন্ত টু লেনের সড়ককে ফোরলেনে উন্নীত করা হয়েছে। বাইরের দেশ থেকে আমদানি করে সুদৃশ্য পোল ও লাইট সংযোজন করা হয়েছে। উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে।
এ দৃষ্টিনন্দন আধুনিক সড়কবাতির মাধ্যমে নতুন একটি মাত্রা পেলো রাজশাহীতে। কারণ এ বাংলাদেশের আর কোনো শহরে এখনো এ ধরনের সুদৃশ্য পোল ও বাতি দেখেনি। এইসব সড়কবাতি শুধু আলো আর নিরাপত্তা বাড়াবে তা নয়, সঙ্গে সৌন্দর্যও বাড়বে।

মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন আরও বলেন, মহানগরীর উপশহর থেকে মালোপাড়া পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ কাজ শেষ পর্যায়ে। আলিফ-লাম-মিম ভাটা থেকে বিহাস পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ শেষ হয়েছে। এছাড়া আলুপট্টি থেকে তালাইমারী পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণের কাজ চলছে। এই সড়কগুলোতেও দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি লাগানো হবে। পদ্মাপাড়ে দৃষ্টিনন্দন ২টি ওভার ব্রিজ করা হয়েছে। ব্রিজ দুইটিতে গ্রাফিটি করা হচ্ছে। নানা রঙে আলপনায় রঙ্গিন করা হচ্ছে শহরটি। এভাবেই রাজশাহীকে অন্যতম দৃষ্টিনন্দন ও বাসযোগ্য শহর হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
রাজশাহী মহানগরীর পশ্চিমের প্রবেশদ্বার কাশিয়াডাঙ্গা মোড় থেকে বিলসিমলা রেলক্রসিং পর্যন্ত ৪ দশমিক ২ কিলোমিটার সড়কটিতে ১৭৪টি দৃষ্টিনন্দন বৈদ্যুতিক পোল বসানো হয়েছে। প্রতিটি পোলে দুইটি করে এলইডি বাল্ব রয়েছে। ১৭৪টি বৈদ্যুতিক পোলে ৩৪৮টি আধুনিক দৃষ্টিনন্দন এলইডি বাল্ব, যা প্রজাপতির মতো ডানা মেলে রয়েছে। দৃষ্টিনন্দন এ বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী বাতিগুলো অটোলজিক কন্ট্রোলারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অন-অফ হবে।

এ সড়কবাতিগুলো স্থাপনের ফলে নাগরিক নিরাপত্তা বৃদ্ধি ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ঘটবে। রাত্রিকালীন গাড়ি চলাচলে গতির সঞ্চার হবে। আধুনিক বসবাসযোগ্য সুন্দর পরিচ্ছন্ন সবুজ মহানগরীকে আরো আধুনিক সাজে সজ্জিত করতে এটি একটি নতুন মাত্রা যোগ হলো। বিলসিমলা রেলক্রসিং থেকে কাশিয়াডাঙ্গা পর্যন্ত সড়ক আলোকায়ন কাজটি শেষ করতে ব্যয় হচ্ছে ৫ কোটি ২২ লাখ টাকা।

রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার উন্নয়নে (১ম সংশোধিত) ১৯৮ কোটি টাকার প্রকল্পের আওতায় ৫২ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ে বিলসিমলা রেলক্রসিং থেকে কাশিয়াডাঙ্গা মোড় পর্যন্ত সড়কটি ৩০ ফুট থেকে ৮০ ফুটে উন্নীত করা হয়েছে। সড়কের দুই পাশে ১০ ফুট চওড়া ফুটপাত ও রাস্তার দক্ষিণ পাশে ৮ ফুট বাইসাইকেল লেন নির্মাণ করা হয়েছে। এ ছাড়া সড়কটির উভয়পাশের আরসিসি ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে। নির্মাণ করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন আইল্যান্ড। আর সবুজায়নের জন্য আইল্যান্ডে ইতোমধ্যে বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে। সড়ক আইল্যান্ডে আলোকায়নের জন্য বাসনো হয়েছে দৃষ্টিনন্দন লাইট ও পোল।

উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন রাসিক মেয়রকন্যা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, রাসিকের পানি ও বিদ্যুৎ স্থায়ী কমিটি সভাপতি ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তরিকুল আলম পল্টু, ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামাল হোসেন, ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন, ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান, ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরুজ্জামান, রাসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক ও বিদ্যুৎ) রেয়াজাত হোসেন, সহকারী প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান সুইট, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আসাদুল ইসলাম সুমন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী তানভীর হাসান সজীব প্রমুখ

Leave A Reply

Your email address will not be published.