Ultimate magazine theme for WordPress.

ঠাকুরগাঁওয়ে ট্রলির চালককে পিটিয়ে হত্যা, বাবা-ছেলে আটক।

0
৯৭ Views

মোঃ আকতারুল ইসলাম আক্তার ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাঁও সুগার মিলে আখ দেওয়ার সিরিয়াল নেওয়াকে কেন্দ্র করে ডিজেল চালিত পাওয়ার ট্রলির চালককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, সোমবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে শহরের রোড এলাকার সুগার মিলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুরেশ চন্দ্র রায় (৫৫) দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার মুর্শিদাহাট গ্রামের সবিন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে।

আটককৃতরা হলেন: দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার মুর্শিদাহাট গ্রামের প্রয়াত আব্দুল হামিদের ছেলে আব্দুর রহিম (৫৫) ও তার ছেলে সোহাগ আলী (১৯)।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, সোমবার রাতে দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ থেকে ডিজেল চালিত পাওয়ার ট্রলিতে করে ঠাকুরগাঁও সুগার মিলে আখ নিয়ে আসে চালক সুরেশ চন্দ্র রায়। এরপর সুগার মিলে আখ দেওয়ার সিরিয়াল নিয়ে ট্রলির চালক সুরেশ চন্দ্র রায়ের সাথে আরেক ট্রলি চালক আব্দুর রহিমের সাথে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে আব্দুর রহিম (৫৫) ও তার ছেলে সোহাগ আলী (১৯) মিলে আখ দিয়ে বেধরক পিটিয়ে সুরেশ চন্দ্র রায়কে জখম করে।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় সুরেশ চন্দ্র রায়কে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১২টার দিকে সুরেশ চন্দ্রের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রকিবুল আলম চয়ন বলেন, নিহত সুরেশ চন্দ্র রায়ের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের দাগ রয়েছে। এতে মনে হচ্ছে তাকে বেধরক পেটানো হয়েছে। এ কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, নিহত সুরেশ চন্দ্র রায়ের লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সেই সাথে এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.