Ultimate magazine theme for WordPress.

যুব সংগঠক ও যুব উদ্যোক্তাদের নিয়ে জনসচেতনতা মূলক অনুষ্ঠান।

0
১৫৫ Views

হাফিজুর রহমান স্টাফ রিপোর্টার :

গতকাল বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১ যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর,নীলফামারীর আয়োজনে হলরুম যুব ভবনে সকাল ১১ঃ০০ ঘটিকায় জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও মাদকবিরোধী কর্মকাণ্ডে নৈতিকতার অবক্ষয় এবং বিপথগামীতা রোধ কল্পে যুব সংগঠক ও যুব উদ্যোক্তাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় জনসচেতনতা মূলক অনুষ্ঠান।

উক্ত জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও মাদকবিরোধী কর্মকাণ্ডে নৈতিকতার অবক্ষয় এবং বিপথগামীতা রোধ কল্পে যুব সংগঠক ও যুব উদ্যোক্তাদের নিয়ে জনসচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলার পুলিশ সুপার জনাব_মোহাম্মদ_মোখলেছুর_রহমান_বিপিএম_পিপিএম_মহোদয়_

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মহোদয় বলেন আমাদের সীমিত সম্পদ দিয়েও যে ঘনবসতিপূর্ণ ছোট্ট দেশে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখা যায়, বাংলাদেশে ইতিমধ্যে তা প্রমাণ করেছে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যুগোপযোগী পদক্ষেপে সোনার বাংলা খ্যাত দেশটি যখন ২০৪১ সালের মধ্যে ‘উন্নত বাংলাদেশ’ হওয়ার স্বপ্ন দেখছে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের মাধ্যমে একটি উদ্ভাবনী শক্তিশালী অর্থনীতির দেশ হিসেবে বিশ্বমণ্ডলে পরিচিত হতে‌ চাচ্ছে। তাই সময় এসেছে দেশের সর্বস্তরের মানুষদের তাঁদের নিজেদের দায়িত্ব, কর্তব্য ও করণীয় সম্পর্কে জানার।

তিনি বলেন বাংলাদেশের উন্নয়নের এই যাত্রায় দেশের তরুণ ও যুব সমাজের গুরুত্ব অপরিসীম। যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গুলোতে প্রশিক্ষণ নিয়ে তাঁদের স্বনির্ভরশীল আত্মকর্মসংস্থান মূলক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ ও নেতৃত্ব নিশ্চিত করতে হবে।

এ সময় পুলিশ সুপার মহোদয় মাদকের ভয়াবহতা নিয়ে বলেন তরুণ ও যুব সমাজের মধ্যে বিভিন্ন কারণে মাদক সেবনের প্রবণতা বেড়ে যাচ্ছে এই মাদকের কারণেই বৃদ্ধি পায় অপরাধ প্রবণতা। মাদক সুস্থ মস্তিষ্কে বিকৃতি ঘটায়, জ্ঞান-বুদ্ধি লোপ করে দেয় এবং নেশা সৃষ্টি করে। তরুণ ও যুব সমাজ সহ সর্বস্তরের মানুষ দের মাদক গ্রহণ থেকে বিরত থাকতে হবে। এবং মাদক মুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করতে হবে।

এছাড়াও পুলিশ সুপার মহোদয় জঙ্গিবাদ,ধর্মীয় উগ্রবাদ, নারী ও শিশু নির্যাতন,নারীর প্রতি সহিংসতা, ইভটিজিং, ধর্ষণ বিরোধী,আত্মহত্যা বিরোধী ও শব্দ দূষণের মত বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেন।

পুলিশ সুপার মহোদয় তাঁর বক্তব্যে শেষে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, নীলফামারীকে এমন জনসচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় ধন্যবাদ জানান।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ শহীদুল ইসলাম সরকার, ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর, যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, নীলফামারী।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, নীলফামারীর বিভিন্ন পদমর্যাদার কর্মকর্তাগণ সহ যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরে বিভিন্ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী নারী-পুরুষগণ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জনাব মোঃ আব্দুল ফারুক, উপ-পরিচালক, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, নীলফামারী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.