Ultimate magazine theme for WordPress.

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর জীবননগর উপজেলার বেকারি প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করেন।

0
৪১ Views

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ- মোঃ মারুফুজ্জামান (বাবু)

আজ মঙ্গলবার ১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ তারিখ জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের শ্রদ্ধেয় মহাপরিচালক মহোদয়ের সার্বিক নির্দেশনা এবং জেলা প্রশাসক মহোদয়, চুয়াডাঙ্গা এর তত্ত্বাবধানে চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব সজল আহম্মেদ এর নেতৃত্বে জীবননগর উপজেলার দত্তনগর রোড ও থানা রোড এলাকায় ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে দত্তনগর রোডে বারভাঙ্গা এলাকায় মেসার্স মা-তুরিন বেকারিকে বিএসটিআই ও স্যানিটারি সার্টিফিকেট ব্যতীত অস্বাস্থ্যকরভাবে খাদ্যদ্রব্য তৈরি ও তৈরিকৃত পণ্যের যথাযথ মোড়কীকরণ বিধি (মেয়াদ, মুল্য, ওজন ইত্যাদি) লংঘন করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৭, ৪৩ ধারায় ১০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়।
পরবর্তীতে অভিযান পরিচালনা করা হয় থানা রোড এলাকায় মেসার্স রানী বেকারিতে। গতবছর তাদের বিএসটিআইয়ের লাইসেন্স, স্যানিটারি সার্টিফিকেট, কর্মচারীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ, কারখানার পরিবেশ মানোন্নয়ন ও উৎপাদিত পণ্যের যথাযথ মোড়কীকরণ বিধি মানার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছিল। কিন্তু আজ পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায় মানা হয় নাই তার কোনটাই। নির্দেশনা অমান্য করে অস্বাস্থ্যকরভাবে খাদ্য দ্রব্য তৈরি করায় ও তৈরিকৃত পণ্যের যথাযথ মোড়কীকরণ বিধি লংঘন করায় একই ধারায় প্রতিষ্ঠানটিকে ৬০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয় এবং সবাইকে মুল্যতালিকা প্রদর্শন ও ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ করতে বলা হয়।
অভিযানে ২টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৭০,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়। সকাল ১১.০০ টা থেকে ৩.০০ টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
সহযোগিতায় ছিলেন জীবননগর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর জনাব মোঃ আনিসুর রহমান।

নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ ও এস আই রকির নেতৃত্বে জীবননগর থানার একটি টিম।

জনস্বার্থে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.