Ultimate magazine theme for WordPress.

চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিন দিন পার হয়ে গেলেও উদ্ধার হয়নি সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী

0
৩৭ Views

নিজস্ব প্রতিনিধি,চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ প্রেমে সাড়া না দেয়ায় তেলকুপি আলিম মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী অপহরণের শিকার হয়েছে। শুক্রবার সকালে জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার তেলকুপি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার সকাল, ৮ঃ০০ ঘটিকার সময় তিসা প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি হইতে বের হইয়া তেলকুপি আলিম মাদ্রাসা যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে স্থানীয় বখাটে রুবেল আলি কয়েকজন সঙ্গীকে নিয়ে তিসাকে অপহরণ করে অটোরিকশা যোগে অজ্ঞাত জায়গায় পালিয়ে যায়।

রুবেল আলি একই উপজেলার তেলকুপি গ্রামের নরেশ আলির ছেলে। শুক্রবার বিকেলে তিসার মা জুবেদা বেগম শিবগঞ্জ থানায় অপহরণের লিখিত অভিযোগ করেছেন।

শিবগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জুবেদা বেগমের মেয়ে তিসা খাতুন তেলকুপি আলিম মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। উল্লেখ আছে তিসার বয়স ১২ বছর। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় একই গ্রামের বখাটে রুবেল আলী তিসাকে উত্ত্যক্ত করত।

এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিবারের দাবি, অবিলম্বে তাদের মেয়েকে উদ্ধার ও অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। তাদের মেয়েকে নিয়ে তারা খুব দুশ্চিন্তিত, বখাটে রুবেল কি করে বসে বলা যায় না। মেয়ের জীবন নিয়ে তিসার মা চিন্তিত। মেয়ে নিখোঁজ হওয়ায় তিসার পরিবারে শোকের ছায়া বিরাজ করছে। মেয়েকে হারিয়ে দিশেহারা মা বাবা। তিসার চাচা বলেন, রুবেলের পরিবারের সাথে তারা যোগাযোগ করেছেন, রুবেলের পরিবার বলছে উক্ত ঘটনা ঘটার পর রুবেল আর বাড়ি ফিরেনি, তারা তিসার পরিবারকে বলে, তিসাকে তারা মা বাবার নিকট ফিরিয়ে দিবে, কিন্তু রুবেলের পরিবার অপহরণের দুদিন পর শনিবার রাতে তিসার চাচাকে বলে যে, তারা ফিরিয়ে দিতে পারবেনা। তিসার মা জুবেদা বেগম প্রতিবেদক এর কাছে অভিযোগ করেন, থানায় মামলা করতে গেলে শিবগঞ্জ থানার ওসি মামলা নেয়নি।

শিবগঞ্জ থানার ওসি শামসুল আলম শাহ্ জানান, স্কুল ছাত্রী তিসাকে উদ্ধার এবং অপহরণকারীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। মামালা না নেয়ার কারণ জানতে চাইলে ওসি জানান, আমি তিসার মাকে শুধু রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য বলেছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.